বাংলা ব্যাকরণ- কারক ও বিভক্তি

কারক ও বিভক্তি, কারক কাকে বলে, কারক কত প্রকার, বিভক্তি কি, বিভক্তি কত প্রকার, কারক ও বিভক্তি চেনার সহজ উপায়, কারক এর উদাহরণ, কর্তৃ কারক কাকে বলে, কর্ম কারক কাকে বলে, করণ কারক কাকে বলে, সম্প্রদান কারক কাকে বলে, অপাদান কারক কাকে বলে, অধিকরণ কারক কাকে বলে, বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা কারক ও বিভক্তি, চাকরির পরীক্ষায় আসা কারক ও বিভক্তি, কারক ও বিভক্তি উদাহরণ, কারক ও বিভক্তি চেনার উপায়, কারক ও বিভক্তি নির্ণয়ের সহজ কৌশল।

কারক ও বিভক্তি

বাক্যস্থিত ক্রিয়াপদের সাথে বিশেষ্য ও সর্বনাম পদের যে সম্বন্ধ থাকে, তাকে কারক বলে।

ডক্টর শহীদুল্লাহর মতে, "ক্রিয়ার সাথে যে পদের কোনো অন্বয় বা সম্বন্ধ থাকে, তাই কারক"।

বাক্যের অন্তর্গত পদগুলোর সাথে ক্রিয়াপদের বিভিন্নভাবে সম্পর্ক হয়ে থাকে। তাই সে ভাব অনুসারে কারককে প্রধানত ছয় ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যথা: ১. কর্তৃ কারক; ২. কর্মকারক; ৩. করণ কারক; ৪. সম্প্রদান কারক; ৫. অপাদান কারক এবং ৬. অধিকরণ কারক।

কারক ও বিভক্তি

কারক নির্ণয়ের সহজ পদ্ধতি

১. কর্তৃ কারক : ক্রিয়াকে "কে" দ্বারা প্রশ্ন করে উত্তর পাওয়া গেলে তা হবে কর্তৃ কারক।

২. কর্ম কারক : ক্রিয়াকে "কি" বা "কাকে" দ্বারা প্রশ্ন করে উত্তর পেলে তা কর্ম কারক।

৩. করণ কারক : ক্রিয়াকে "কি দিয়ে" বা "কিসের সাহায্যে" প্রশ্ন করে উত্তর পেলে তা করণ কারক।

৪. সম্প্রদান কারক : ক্রিয়াকে "কাকে" দ্বারা প্রশ্ন করে উত্তর পেলে তা হবে সম্প্রদান কারক।

৫. অপাদান কারক : ক্রিয়াকে "কোথা হতে" বা "কি হতে" প্রশ্ন করে উত্তর পেলে তা অপাদান কারক।

৬. অধিকরণ কারক : ক্রিয়াকে "কোথা, কিসে, কখন" দ্বারা প্রশ্ন করে উত্তর পেলে তা অধিকরণ কারক।

একটি উদাহরণের সাহায্যে এই ছয় প্রকার কারকের নমুনা দেখানো হলো:
১. কে দিচ্ছেন - প্রেসিডেন্ট। (কর্তৃকারক)
২. কি দিচ্ছেন - অর্থ। (কর্মকারক)
৩. কি দ্বারা/কি দিয়ে দিচ্ছেন - নিজ হস্ত। (করণ কারক)
৪. কাকে দিচ্ছেন/কাকে দান করছেন- গরিবদের। (সম্প্রদান কারক)
৫. কোথা হতে দিচ্ছেন - নিজ তহবিল হতে। (অপাদান কারক)
৬. কোথায়/কখন দিচ্ছেন - ঈদের দিনে। (অধিকরণ কারক)

বিভক্তি

বাক্যস্থিত একটি শব্দের সঙ্গে অন্য শব্দের সম্পর্ক স্থাপনের জন্য শব্দের শেষে যে সকল বর্ণ বা বর্ণসমষ্টি যুক্ত হয়, তাকে বিভক্তি বলে। যেমন- ছাদে বসে মা শিশুকে চাঁদ দেখাচ্ছেন। বাক্যটিতে (ছাদ + এ), (মা + ০) (চাঁদ + ০)-এ, ০ বিভিক্তিগুলো ক্রিয়াপদের সাথে নাম পদের সম্পর্ক স্থাপন করছে। বিভক্তি চিহ্ন স্পষ্ট না হলে সেখানে শূণ্য বিভক্তি আছে মনে করতে হবে।

বিভক্তি দুই প্রকার

১. শব্দ বিভক্তি বা নাম বিভক্তি এবং ২. ক্রিয়া বিভক্তি বা ধাতু বিভক্তি।

১. শব্দ বিভক্তি বা নাম বিভক্তি : নাম শব্দ বা নাম পদের সাথে যেসব বিভক্তি যুক্ত হয়, সেগুলোকে শব্দ বিভক্তি বা নাম বিভক্তি বলে।

২. ক্রিয়া বিভক্তি বা ধাতু বিভক্তি : ধাতুর পরে ইচ্ছে, ইল, ইব ইত্যাদি যেসব বিভক্তি যুক্ত হয়ে ক্রিয়াপদ গঠিত হয়, তাকে ক্রিয়া বিভক্তি বলে।

বাংলা ভাষায় ব্যবহৃত বিভক্তিগুলোর একবচন ও বহুবচনের রূপ

বিভক্তির নাম একবচন বহুবচন
প্রথমা বিভক্তি ০, য়, এ, তে রা, এরা, গুলি (গুলো), গণ
দ্বিতীয়া বিভক্তি অ, কে, রে, য়, এ, তে দিগে, দিগকে, দিগেরে, দের, দেরে
তৃতীয়া বিভক্তি অ, এ, তে, দ্বারা, দিয়া, কর্তৃক, থেকে দিগের, দিয়া, দের, দিয়া, দ্বারা দিগ কর্তৃক, দিগ থেকে
চতুর্থী বিভক্তি কে, রে, এরে দিগকে, দিগেরে
পঞ্চমী বিভক্তি ০, এ, রে, তে, হইতে, থেকে, চেয়ে দিগ হইতে, দের হইতে, দিগের চেয়ে
ষষ্ঠী বিভক্তি ০, র-এর দের, দিগের
সপ্তমী বিভক্তি এ, য়, তে, এতে দিগে, দিগেতে, মধ্যে

কারক ও বিভক্তি এর উদাহরণ

  1. অন্ধ সমিতিতে টাকা দিলাম- সম্প্রদানে ৭মী।
  2. অহংকার পতনের মূল- করণে শূণ্য।
  3. অন্ন চাই, প্রাণ চাই, আলো চাই, চাই মুক্ত বায়ু- কর্মে শূণ্য।
  4. অমিয়া পড়ে- কর্তায় শূণ্য।
  5. আমি কি ডরাই সখি ভিখারী রাঘবে- অপাদানে ৭মী।
  6. আমি জিজ্ঞাসিব জনে জনে- কর্মে ৭মী।
  7. আমরা ফুটবল খেলতে ভালোবাসি- করণে শূণ্য।
  8. অল্প শোকে কাতর- করণে ৭মী।
  9. অন্ধহীনে দেহ আলো, মৃতজনে প্রাণ- সম্প্রদানে ৭মী।
  10. অধমে কর পার প্রভু- কর্মে ৭মী।
  1. অধ্যয়নে বিরত হইও না- অপাদানে ৭মী।
  2. অর্থে অনর্থ ঘটে- কর্মে শূণ্য।
  3. অর্থই অনর্থের মূল- কর্মে ৬ষ্ঠী।
  4. আমায় আরো জ্ঞান দাও খোদা- কর্মে ৭মী।
  5. আমাদের একটি গল্প বলুন- কর্মে ৬ষ্ঠী।
  6. আমরা ঘর হইতে পাহাড় দেখি- অধিকরণে ৫মী।
  7. আমাকে তুমি করিবে ত্রাণ এ নহে মোর প্রার্থনা- কর্মে ২য়া।
  8. আমাকে যেতে হবে- কর্তায় ২য়া।
  9. আজ সারাদিন ধরে আকাশে মেঘ- অধিকরণে ৭মী।
  10. এই নদীর মাছ বড়- অধিকরণে ৬ষ্ঠী।
  1. আকাশে চাঁদ উঠেছে- অধিকরণে ৭মী।
  2. ইটের বাড়ি-ঘর শক্ত হয়- করণে ৬ষ্ঠী।
  3. উদাস ফাল্গুনী হাওয়া ডাকিছে আমায়- কর্তায় শূণ্য।
  4. একদিন যাব- অধিকরণে শূণ্য।
  5. একটানে তোমার নাম লিখ তো- করণে ৭মী।
  6. এ বছর তেমন বৃষ্টি হয় নি- অধিকরণে ৭মী।
  7. এবার কাজী সাহেব হজ্বে গেছেন- সম্প্রদানে ৭মী।
  8. এই মুহূর্তে ডাক্তার ডাক- কর্মে শূণ্য।
  9. এখন সকাল ১০টা, বাজারে যাও- অধিকরণে ৭মী।
  10. এই জমিতে সোনা ফলে- অধিকরণে ৭মী।
  1. একি কথা শুনি আজি মন্থরার মুখে- অপাদানে ৭মী।
  2. এ সন্তান হতে দুঃখ দূর হবে না- করণে ৫মী।
  3. এ সন্তান হতে দেশের অনেক কাজ হবে- করণে ৫মী।
  4. এই বনে বাঘের ভয় নাই- অপাদানে ৬ষ্ঠী।
  5. কপালের লিখন না যায় খণ্ডন- অধিকরণে ৬ষ্ঠী।
  6. কত ধানে কত চাল হয়; সে আমি জানি- অপাদানে ৭মী।
  7. কথা কাটাকাটিতে বন্ধুত্ব নষ্ট হয়- অপাদানে ৭মী।
  8. কন্যা সৎ পাত্রস্থ কর- সম্প্রদানে শূণ্য।
  9. কাঁথায় শীত নিবারণ হয়- করণে ৭মী।
  10. কারকগুলো নির্ণয় কর- কর্মে শূণ্য।
  1. কালির আঁচড় নয় রক্তের- করণে ৬ষ্ঠী।
  2. কথায় কথা বাড়ে- করণে ৭মী।
  3. কান্নায় শোক মন্দীভূত হয়- করণে ৭মী।
  4. কাচের জিনিস সহজে ভাঙে- করণে ৬ষ্ঠী।
  5. কে তোরে সাজাল সখী- কর্মে শূণ‌্য।
  6. কাননে কুসুম কলি সকলি ফুটিল- অধিকরণে ৭মী।
  7. কে ডাকিল মোরে ইশারায়?- কর্মে ৭মী।
  8. কোথা সে ছায়া সখি, কোথা সে জল- কর্তায় শূণ‌্য।
  9. করিলাম মন শ্রীবৃন্দাবন বারেক আসিব ফিরি- অধিকরণে শূণ‌্য।
  10. আমারি সোনার ধানে গিয়েছি ভরি- করণে ৭মী।

পরীক্ষার জন‌্য ব‌্যাকরণ-এর গুরুত্বপূর্ণ বিষয়সমূহ

সকল প্রকার ভর্তি পরীক্ষা, চাকরির পরীক্ষা, HSC পরীক্ষা ও SSC পরীক্ষার জন‌্য বাংলা ব‌্যাকরণ-এর গুরুত্বপূর্ণ বিষয়সমূহের লিংক নিচে দেয়া হলো। হলুদ বাটনে ক্লিক করে বিষয়ভিত্তিক পেজগুলো ভিজিট করুন।

বাগধারা কাকে বলে? অ, আ দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। ই, ঈ, উ, ঊ, এ, ও দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। ক, খ দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। গ, ঘ, চ, ছ দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। জ, ঝ, ট, ঠ, ড, ঢ, ত, থ, দ, ধ, ন দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। প, ফ, ব, ভ, ম, য, র, ল, শ, ষ, স, হ দিয়ে বাগধারা পড়তে এখানে ক্লিক করুন। সন্ধি কি? সন্ধি শব্দের অর্থ কি? পড়তে এখানে ক্লিক করুন। এককথায় প্রকাশ বা বাক‌্য সংকোচন পড়তে এখানে ক্লিক করুন সমাস ‍কি? সমাস কত প্রকার? পড়তে এখানে ক্লিক করুন। সমার্থক শব্দ বা প্রতিশব্দ কি ও এর উদাহরণ পড়তে এখানে ক্লিক করুন। বিপরীত শব্দ পড়তে এখানে ক্লিক করুন লিঙ্গ প্রকরণ এর বিস্তারিত এখানে পড়ুন বানান শুদ্ধিকরণ ও বাক্য শুদ্ধিকরণ এর বিস্তারিত এখানে পড়ুন বচন অর্থ সংখ্যার ধারণা, বিস্তারিত এখানে পড়ুন বিরামচিহ্ন কাকে বলে? বাংলায় বিরামচিহ্ন কয়টি ও কি কি? পড়তে এখানে ক্লিক করুন। প্রমিত বাংলা বানান কী? প্রমিত বাংলা বানানের দশটি নিয়ম লেখ। পড়তে এখানে ক্লিক করুন। প্রমিত বাংলা বানানের প্রয়োজনীয়তা কী? বুঝিয়ে লেখ। পড়তে এখানে ক্লিক করুন। বিদেশি শব্দে প্রমিত বাংলা বানানের পাঁচটি নিয়ম লেখ। পড়তে এখানে ক্লিক করুন। জোড় বা সমোচ্চরিত শব্দ- অ থেকে ঔ পর্যন্ত পড়তে এখানে ক্লিক করুন। জোড় বা সমোচ্চারিত শব্দ- ক থেকে ন পর্যন্ত পড়তে এখানে ক্লিক করুন। জোড় বা সমোচ্চারিত শব্দ ও তার প্রয়োগ। প থেকে হ পর্যন্ত পড়তে এখানে ক্লিক করুন।