অনিয়মিত ঋতু (Irregular Menstruation)

অনিয়মিত ঋতু বা অনিয়মিত মাসিক মেয়েদের জন‌্য কষ্টদায়ক এবং অস্বস্থির কারণ। অনিয়মিত ঋতু বা Irregular Menstruation সম্পর্কে মেয়েদের সঠিক ধারণা না থাকার কারণে তারা বিভ্রান্তিতে ভোগে। এখানে অনিয়মিত ঋতু বা Irregular Menstruation এর লক্ষণ ও এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

অনিয়মিত ঋতু বা অনিয়মিত মাসিক (Irregular Menstruation) এর লক্ষণ

IMAGENAME

মেয়েদের প্রতি ২৮ দিনে জরায়ুদ্বার দিয়ে হালকা কালো লালবর্ণের পাতলা স্রাব হয়। সচরাচর তিন হতে পাঁচ দিন পর্যন্ত স্রাব বর্তমান থাকে। স্রাবের পরিমাণ এক হতে দেড় পোয়া পর্যন্ত হয়ে থাকে। উল্লিখিত নিয়মের ব‌্যতিক্রম হলে চিকিৎসা করানো কর্তব‌্য।

অনিয়মিত রজঃস্রাব বা অনিয়মিত মাসিকের লক্ষণ- রজঃস্রাব বা মাসিক হঠাৎ বন্ধ হয়ে এভাবে ২ বা ৩ মাস পর্যন্ত বন্ধ, কখনও কখনও ৪ বা ৫ মাস বন্ধ থেকে হঠাৎ অধিক পরিমাণে স্রাব কিংবা ১০ বা ১৫ দিন ধরে অল্প অল্প স্রাব নিঃসরণ হয়। এই প্রকার অবস্থার প্রধান কারণ ডিম্বকোষ হতে ডিম্ব নিঃসরণের অনিয়ম। ডিম্বকোষ হতে যেদিন ডিম্ব নির্গত হয়ে কালল-নলে প্রবেশ করে তার চৌদ্দ দিন পরে সুস্থ মেয়েদের ঋতু বা মাসিক শুরু হয়। যদিও এই রোগে উক্ত নিয়মের ব‌্যতিক্রম হয় না তবুও অনিয়মিত ডিম্ব নির্গমন বশতঃ ঋতু বা মাসিক অনিয়মিত হতে পারে।

অনিয়মিত ঋতু বা অনিয়মিত মাসিক (Irregular Menstruation) এর চিকিৎসা

কোনায়াম ১, ৩০ এই রোগের একটি উৎকৃষ্ট ঔষধ। বিরামকালে সিনিসিও ০ দুই ফোঁটা করে প্রত‌্যেকদিন তিনবার সেবন করলে অনিয়মিত ঋতু বা অনিয়মিত মাসিক নিয়ন্ত্রিত হয়। ‍পালসেটিলা ৬ বা চায়না ৬ পর্যায়ক্রমে প্রয়োগ করে ভালো উপকার পাওয়া যায়। খুব তাড়াতাড়ি যেমন ১৫ দিন পরপর ঋতু বা মাসিক হলে- ইগ্নেসিয়া, বেল, ক‌্যাল্কেকার্ব, নেট্রাম-মিউর, ইপিকাক। খুব দেরিতে ঋতুস্রাব বা মাসিক হলে- কেলি-কার্ব, ল‌্যাকে, পালস্‌, সালফ। ঋতু বা মাসিক দীর্ঘকাল স্থায়ী হলে- অ‌্যাকোন, ইগ্নে, নাক্স-ভম, প্ল‌্যাটিনা, সালফ

অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation)

অনেক মেয়ে বা অভিভাবক অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation) সম্পর্কে সঠিক ধারণা না থাকার কারণে সঠিক চিকিৎসা নিতে পারেন না। প্রত‌্যেক স্ত্রীলোক, মেয়ে বা মহিলার অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation) সম্পর্কে ধারণা থাকা প্রয়োজন। রজোলোপ (বা অল্প রজঃস্রাব) বশত নাক বা মলদ্বার প্রভৃতি দিয়ে রক্ত নিঃসরণ হলে তাকে অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation) বলে। নিচে এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা দেয়া হল।

অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation) এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা

অনুকল্প-রজঃ (Vicarious Menstruation) এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা- নাক, মলদ্বার বা শরীরের অন‌্যান‌্য যে কোন দ্বার দিয়ে রক্তস্রাব, রক্ত-বমন, পেট টাটানি, বুকে ব‌্যাথা, কাশি (সাদা স্রাব, মেহ ইত‌্যাদি থাকুক বা না থাকুক) এমন লক্ষণ দেখা দিলে- হ‌্যামামেলিস ১। নাক দিয়ে রক্ত পড়লে ফেরাম-ফস ৬x বা ব্রাইয়োনিয়া ৬। উজ্জ্বল লালবর্ণের রক্তস্রাব হলে ইপিকাক ৩x, ৬ । কাশতে কাশতে রক্তস্রাব, দুর্বলতা, মুখমন্ডলের রক্তহীনতা লক্ষণ সহ যক্ষারোগের পূর্বলক্ষণ প্রকাশ পেলে সিনিসিও ৩x। নাক ও কান দিয়ে রক্ত বের হলে, স্তনে ব‌্যাথা, গা গরম মনে হলে পালসেটিলা ৬। অত‌্যন্ত দুর্বলতা ও রক্তস্বল্পতা লক্ষণে ফেরাম ৬। মলদ্বার হতে রক্তস্রাবে কলিন্সোনিয়া ৬। ঋতুস্রাবের পরিবর্তে সাদা স্রাব হলে- ক‌্যাল্কে-কার্ব, ফেরাম, চায়না, বোরাক্স, ম‌্যাগ্নে-সালফ, ফস্ফো

স্বল্প-রজঃ (Scanty Menstruation)

বিভিন্ন রোগে ভুগে রক্তস্বল্পতা বশত স্বল্প রজঃস্রাব হলে মূল পীড়ার চিকিৎসা করতে হয়। এই রোগ উৎপত্তির কারণ অনেকাংশে অনিয়মিত ঋতুর কারণগুলোর মত। ধাতুদোষ জনিত স্বল্প-রজঃ হলে- ক‌্যাল্কে-ফস, সাইক্লে, কোনায়াম, আয়োড, নেট্রাম-মিউর, মার্ক, ফস, পালস, সিনসিও, সিপিয়া, সিমিসি, সালফ। রক্তস্বল্পতা জনিত স্বল্পরজঃ হলে- আর্জ-নাই, হেলিবোরাস, ফেরাম, নেট্রাম-মিউর। কোষ্ঠকাঠিন‌্য বা চর্মপীড়াদি সহ স্বল্পরজঃ হলে- কলিন্সো, গ্র‌্যাফাই, নাক্স-ভম

জরায়ু-দোষে স্বল্প রজঃস্রাব হলে নিম্নলিখিত ঔষধগুলো লক্ষণ অনুসারে প্রযোজ‌্য হবে-

ক্লান্তি, শারীরিক ও মানসিক অবসাদ, ত্বক দেখে কষ্টদায়ক মনে হলে, ঠান্ডা বাতাস অসয‌্য, বমি, মাথা ব‌্যাথা ও রক্তস্বল্পতা দেখা গেলে- সিপিয়া ৩০। সামান‌্য পরিমাণে পানির মত স্রাব, সারা শরীর জীর্ণ শীর্ণ, ঠান্ডা ঠান্ডা অনুভূতি, রজঃস্রাবের আগে ও রজঃস্রাবের সময়ে ব‌্যাথা হলে- পালসেটিলা ৬। আহার বা বাতাস সেবনের অভাব বশত অথবা কোনপ্রকার জীর্ণ রোগজনিত অল্প রজঃস্রাব হলে- ফেরাম। যথাসময়ে ঋতুর অনুস্থিতি, কোষ্ঠকাঠিন‌্য, সারা শরীরে চুলকানি, গরম অনুভূতি বা থেকে থেকে গরমবোধ হলে- সালফার ৩০। অনেক দেরিতে ঋতুস্রাব এবং ঋতুর পূর্বে যৌনাঙ্গ চুলকালে- গ্র‌্যাফাইটিস ৬। কোষ্ঠকাঠিন‌্য সহ অল্প রজঃস্রাব ও রোগিণীর বর্ণ মেটে রং হলে- নেট্রাম-মিউর ১২x চূর্ণ। অধিক দেরিতে অত‌্যন্ত কালবর্ণ ঋতুস্রাব হলে- ম‌্যাগ্নে-কার্ব ৬। কোষ্ঠবদ্ধতা ও সেই সাথে ঘাম থাকলে- ফস্ফোরাস ৬, প্ল‌্যাটিনা ৬, কার্বো-ভেজ ৬ বা সালফার ৬, ৩০ সময় সময় আবশ‌্যক হয়ে থাকে।

জরায়ু, ঋতু বা মাসিক, গর্ভসঞ্চার কি?

স্ত্রীরোগ চিকিৎসা শুরু করার আগে স্ত্রী-জননেন্দ্রিয় সম্বন্ধে জানতে হবে। জরায়ু (uterus), ঋতু বা মাসিক (menstrution), গর্ভসঞ্চার কি? এ বিষয়ে ধারণা থাকতে হবে। স্ত্রী-জননেন্দ্রিয় এবং বিভিন্ন স্ত্রীরোগ এর নাম ও হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা সম্পর্কে বিস্তারিত পড়তে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

জরায়ু, ঋতু বা মাসিক, গর্ভসঞ্চার বিস্তারিত এখানে

আর্ত্তব-ব্যাধি (ঋতু বা মাসিকের রোগ) (Disorder of Menstruation)

ঋতু বা মাসিকের বিভিন্ন ধরনের রোগকে আর্ত্তব-ব্যাধি বা Disorder of Menstruation বলা হয়। এখানে বিভিন্ন প্রকার আর্ত্তব-ব্যাধি (ঋতু বা মাসিকের রোগ) ও এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা নিয়ে পর্যায়ক্রমে আলোচনা করা হয়েছে। বিস্তারিত পড়তে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

ঋতু বা মাসিকের রোগ (Disorder of Menstruation) বিস্তারিত এখানে

অতিরজঃ (Menorrhagia)

অনেক মেয়ে বা মহিলা মাসিক চলাকালে অতিরজঃ বা Menorrhagia সমস‌্যায় ভুগে থাকেন। অতিরজঃ বা Menorrhagia কি? এর লক্ষণ কি? এর এর হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা কি? এই সব প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে বিস্তারিত পড়তে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।

মাসিক চলাকালে অতিরজঃ বিস্তারিত এখানে